বাড়িতে বসে একঘেয়েমিতে ভুগছেন?

/বাড়িতে বসে একঘেয়েমিতে ভুগছেন?

বাড়িতে বসে একঘেয়েমিতে ভুগছেন?

প্রতিদিন ব্যস্ত সময় কাটাতে কাটাতে আমরা সবাই মাসে কিছু অবসর সময় চাই।তবে সেই অবসর সময় পেলে দেখা যায় প্রথম কয়েক দিন হয়ত বেশ আরাম আয়েশে ও ঘোরাঘুরির মধ্য দিয়ে কাটে।কিন্তু আস্তে আস্তে তা একঘেয়ে হয়ে যায়।সবার ক্ষেত্রে হয়ত তা হয় না,তবে যাদের বিভিন্ন কারণে ভ্রমণ বা বিনোদন মুলক কমকান্ডের সাথে যুক্ত হওয়া সম্ভব হয় না তারা ধীরেধীরে এক ধরনের একঘেয়েমিতে ভোগেন।এ একঘেয়েমি দূর করার বেশ কিছু উপায় রয়েছে এবং নিজে চাইলেই তা প্রয়োগ করে দূর করা সম্ভব হবে।সে উপায়গুলো কি কি তা বিস্তারিত দেয়া হল।

SPONSORED ADS 

ম্যাগাজিন এ লিখতে  এখানে রেজিস্ট্রেশন করুন 

নিজের প্রতিভা আবিষ্কার করুন:
একমাত্র অবসর সময় ই হল নিজেকে নিয়ে চিন্তা করার উপযুক্ত সময়।বিভিন্ন রকম ক্রিয়েটিভ কাজে যুক্ত হয়ে দেখুন কোনটিতে আপনি ভাল করছেন।সেটা যে কোন কাজই হতে পারে যেমন ছবি আকা,গল্প বা কবিতা লেখা,গান গাওয়া এবং এ ধরনের আরও অনেক কাজ।কাজটি করলেই বোঝা যাবে যে আপনি সেটাতে ভাল করছেন কি না।

নিজের প্রতি মনোযোগী হোন: 
এটিই উপযুক্ত সময় নিজের প্রতি মনোযোগ দেয়ার।অর্থাৎ নিজেকে সময় দেয়া।ব্যস্ততার কারণে সবসময় তা সম্ভব হয় না।কাজেই,অবসর সময়েই তা করা দরকার।আয়নায় নিজেকে দেখুন এবং ভাবুন নিজের মধ্যে কি আছে এবং কি নেই।নিজের বাহ্যিক ও অভ্যন্তরীণ গুণ ও ক্রুটিগুলো আইডেন্টিফাই করুন।নিজের পছন্দ ও অপছন্দ নিয়ে ভাবুন।কি কি করা দরকার তা নিয়েও ভাবুন।
এরপর কাজে লেগে যান।প্রতিদিন অন্তত এক ঘন্টা ব্যায়াম করুন।দেখুন দিন দিন কি রকম পরিবরতন আসে।পাশাপাশি রুপচরচা ও চালিয়ে যান।বেছে নিন নিজের পছন্দের ফেস মাস্ক ও স্ক্রাবার।নিজেই হয়ে যান নিজের বিউটিশিয়ান।আজকাল অনলাইনের মাধ্যমে অনেক রকম তথ্য পাওয়া যায়।সে অনুযায়ী ব্রাউজ করে তা ফলো করুন।
সাজগোজ ও সময় কাটানোর একটি অন্যতম উপায় হিসেবে গণ্য হতে পারে।আয়নার সামনে বসে এক একদিন এক এক ধরনের মেকাপ ট্রাই করুন।রং তুলির মাধ্যমে নিজেকে পছন্দমত সাজিয়ে তুলুন।অনেকের থেকে মাঝে মাঝে শোনা যায় যে, তাদের সাজগোজ ভাল লাগে কিন্তু সাজতে জানেন না।টানা কয়েকদিন প্রাকটিস করলে খুব সহজেই সাজগোজ নিজের আয়ত্তে চলে আসবে।

বই পড়া ও মুভি দেখা:
বই পড়া ও মুভি দেখা নিসন্দেহে সময় কাটানোর ভাল মাধ্যম।যে কোন বুক স্টোরে গিয়ে নিজের পছন্দমত বই সিলেক্ট করে নিন।প্রয়োজনে একটি রিডিং লিস্ট তৈরি করে রাখতে পারেন।গল্পের বই,কবিতার বই,ম্যাগাজিন সব ধরনের বই ই যে কোন বুক স্টোরে থাকে।দেখবেন সময় বেশ ভাল কাটবে।হরেক রকম জ্ঞান ও অজন করতে পারবেন।তাছাড়া মুভিও দেখতে পারেন।যা ক্ষনিকের জন্য আপনাকে বাস্তব জগত থেকে দূরে নিয়ে যাবে।
এসব পদ্ধতি খুব সহজেই একঘেয়েমি দূর করতে সহায়ক।

লিখেছেন নাযিয়া আমিন  

Sponsored Ads

লাইক করুন , কমেন্ট করুন এবং শেয়ার করুন ।

Facebook Comments

Nazia Amin

Did LLB (hons) from BRAC University and LL.M from Southeast University.
2017-09-22T11:19:23+00:00

About the Author:

Did LLB (hons) from BRAC University and LL.M from Southeast University.

Leave A Comment

Shares